তীরহারা এই ঢেউয়ের সাগর পাড়ি দেব রে…

- নাজমুল আহসান

চারটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা।

ঘটনা-১
বাংলাদেশ-পাকিস্তান খেলার দিন জুনিয়র এক ছেলে আফ্রিদির স্তুতিমূলক একটা স্ট্যাটাস দিল। ইংরেজিতে লেখা তার সেই স্ট্যাটাসের অর্থ হল- সে অপেক্ষা করছে, কখন আফ্রিদি জ্বলে(!) ওঠে।
সাথে সাথে আনফ্রেন্ড করে দিলাম। পরে দেখলাম, সে তার স্ট্যাটাসের একটা ব্যাখ্যাও দাঁড় করিয়েছে। একটা কি দুইটা রিপ্লাই দিয়ে সরে এলাম। বেশি কথা বলতে রুচিতে বাঁধল।

ঘটনা-২
একই দিন। বাংলাদেশ হেরে গেল। বাংলাদেশের পরাজয়ে আমার খুব কাছের এক বন্ধু দুঃখ পেয়ে স্ট্যাটাস দিল, হিন্দিতে! হিন্দিতে কেন, বাংলায় কেন নয় – জিজ্ঞেস করলাম। সেও একটা ব্যাখ্যা দিল। আমি কথা বাড়ালাম না।

ঘটনা-৩
ভারত-পাকিস্তান খেলা চলার সময় পাকিস্তানের পক্ষ নিয়ে হৈচৈ-হর্ষধ্বনি করার অভিযোগে কিছু ছাত্রকে সাময়িকভাবে বহিস্কার করেছে ভারতের এক বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

ঘটনা-৪
আমার ইঞ্জিনিয়ার-টাইপ ভাগ্নের বয়স ছয়। কার্টুন দেখার চেয়ে স্ক্রু-ড্রাইভার দিয়ে খেলনা গাড়ি আর মোবাইল ফোন খুলতে-লাগাতে বেশি পছন্দ করে। আমি মাঝে মাঝে ভাগ্নেকে ফিজিক্স, কেমিস্ট্রি পড়াই! অণু-পরমাণু, মহাকর্ষ-অভিকর্ষ ইত্যাদি বিষয়ে ভাগ্নের মোটামুটি ধারণা আছে। কাল দুপুরে ওর কানে ইয়ারফোন লাগিয়ে একটা গান শোনালাম। বাপ্পা মজুমদারের কণ্ঠে আপেল মাহমুদের বিখ্যাত গান- ‘তীরহারা এই ঢেউয়ের সাগর পাড়ি দেব রে…’
ভাগ্নে আমাকে জিজ্ঞেস করে ‘তীরহারা’, ‘নবীন’ ইত্যাদি কয়েকটা শব্দের মানে জেনে নিল। গান শোনা শেষ করে বলল- ‘গানটা তো অনেক সুন্দর!’
আমি প্রায় নিশ্চিত, গানের মূল অর্থটা ভাগ্নে ধরতে পারেনি। তবু আনন্দে বুকটা ভরে গেল। আমার অতি কাছের মানুষগুলো উজানের দিকে যাচ্ছে, ভাটিতে গা ভাসায়নি।

(মোট পড়েছেন 147 জন, আজ 1 জন)
শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন